• ২০২৩ মার্চ ২৯, বুধবার, ১৪২৯ চৈত্র ১৫
  • সর্বশেষ আপডেট : ১:৪০ পূর্বাহ্ন
  • বেটা ভার্সন
Logo
  • ২০২৩ মার্চ ২৯, বুধবার, ১৪২৯ চৈত্র ১৫

মুশফিকের পর দ্রুত সাজঘরে ফিরলেন সাকিব

  • প্রকাশিত ২:২১ অপরাহ্ন বুধবার, মার্চ ০১, ২০২৩
মুশফিকের পর দ্রুত সাজঘরে ফিরলেন সাকিব
সংগৃহীত
নিজস্ব প্রতিবেদক

মিরপুরে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে টস জিতে ব্যাট করছে বাংলাদেশ। মুশফিকের বিদায়ে গুরুত্বপূর্ণ জুটি ভাঙার পর শান্তর যোগ্য সঙ্গী হতে পারেননি সাকিব। মঈন আলীর স্পিনে পরাস্ত হয়ে দ্রুতই সাজঘরে ফিরেছেন। সুইপ করতে গিয়ে ৮ রানে বোল্ড হয়েছেন বামহাতি অলরাউন্ডার। তার ১২ বলের ইনিংসটি ছিল ১ চারে সাজানো।  

২৯ ওভার শেষে স্বাগতিক বাংলাদেশের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ১২৭ রান।ব্যাট করছেন মাহমুদউল্লাহ (১৪) ও নাজমুল হোসেন শান্ত (৪৬)।

মুশফিকের বিদায়ে ভেঙেছে ৪৪ রানের জুটি

দুই ওপেনারের বিদায়ের পর দলকে বিপদ থেকে উদ্ধারের চেষ্টা করছিলেন মুশফিক-শান্ত জুটি। ৪৪ রানও যোগ করেন তারা। ২০তম ওভারে এই জুটি ভেঙেছেন লেগ স্পিনার আদিল রশিদ। 

এর আগে ক্যাচে জীবন পেলেও ২০তম ওভারে মুশফিকের আর শেষ রক্ষা হয়নি। স্লগ সুইপ খেলতে গেলে বল ব্যাটের কানায় লেগে উঠে যায় বাতাসে। দৌড়ে এসে তা লুফে নেন উড। ফেরার আগে মুশফিক ৩৪ বলে ১৭ রান করেছেন। তাতে ছিল একটি ছয়।

জীবন পেয়েছেন মুশফিক-শান্ত

তামিম ইকবাল ভালো ব্যাটিংয়ে দলকে এগিয়ে দিলেও ইনিংস লম্বা করতে পারেননি। তার পর অবশ্য জুটি গড়ার চেষ্টায় ছিলেন মুশফিকুর রহিম-নাজমুল হোসেন শান্ত। 

১৭তম ওভারেই মুশফিক ফিরতে পারতেন। মঈন আলীর বলে উঠিয়ে মেরেছিলেন। বাউন্ডারি লাইনের কাছে থাকা ফিল সল্ট ক্যাচ নিলেও লাইন অতিক্রম করেছিলেন তিনি। পরে রিভিউ দেখেই নটআউট দেওয়া হয় তাকে। আদিল রশিদের বলে ১৮তম ওভারে শান্তরও ক্যাচ উঠেছিল। কিন্তু মিড উইকেটে জেসন রয়ের নেওয়া ক্যাচটি মাটিতে স্পর্শ করায় জীবন পান তিনি।

তামিমের বিদায়ে সাজঘরে দুই ওপেনার

ওপেনার লিটন বেশিক্ষণ সঙ্গ দিতে না পারলেও অধিনায়ক তামিম ইকবালের ব্যাটেই স্কোর পঞ্চাশ ছুঁয়েছে। তবে তিন পেসার নিয়ে সফরকারীদের আক্রমণাত্মক রণ কৌশলে বেশিক্ষণ স্থায়ী হতে পারেননি তিনি। দুই পেসার ক্রিস ওকস ও জোফরা আর্চার ৯ ওভার শেষ করেছিলেন। আরেক পেসার মার্ক উড তার প্রথম ওভারটি করতে এসেই বোল্ড করেছেন তামিমকে। 

পাওয়ার প্লের দশম ওভারে উডের বাউন্স করা তৃতীয় বলটি খেলতে পারেননি তিনি। বল ব্যাটের কানায় লেগে স্টাম্পে আঘাত করেছে। ফেরার আগে ৩২ বলে ২৩ রান করেছেন তামিম। তার ইনিংসে ছিল ৪ চারে সাজানো।

জীবন পেয়েছেন শান্ত

লিটনের বিদায়ের পর নাজমুল হোসেন শান্তও দ্রুত ফিরে যেতে পারতেন। জোফরা আর্চারের অষ্টম ওভারের শেষ বলে পয়েন্টে ক্যাচ তুলে দিয়ে ছিয়েছিলেন। জেসন রয় ডান দিকে ঝাঁপিয়ে পড়েও বলটা হাতে রাখতে পারেননি। একই ওভারের প্রথম বলে দারুণ চারে রানের খাতা খুলেছেন তিনি।  

ছক্কা মারার পরের বলেই আউট লিটন

তামিম স্বভাবসুলভ ব্যাটিংটা করে গেলেও লিটন খেলছিলেন ধীরস্থির ভাবে। পঞ্চম ওভারে আগ্রসী হতে গিয়েই বিপদ ডেকে আনেন লিটন। ক্রিস ওকসের বলে লেগ বিফোরে সাজঘরে ফিরেছেন। অবশ্য তার আগের বলটিতে দৃষ্টিনন্দন পুলে ছক্কা হাঁকিয়েছিলেন। পরের বলটির লাইন বুঝতে না পারায় পরাস্ত হয়েছেন। বল প্যাডে লাগার পর ওকস আবেদন করলে আম্পায়ার সঙ্গে সঙ্গে আঙুলও তুলে দিয়েছেন। রিভিউ নিয়েও লাভ হয়নি। ফেরার আগে লিটন ১৫ বলে ৭ রান করেছেন।   

প্রথম ওভারেই ফিরতে পারতেন তামিম

শুরুর ওভারেই অধিনায়ক তামিম ইকবাল অল্পের জন্য জীবন পেয়েছেন। পঞ্চম বলটি ড্রাইভ করেছিলেন। কিন্তু ফলোথ্রুতে নিচুভাবে আসা কঠিন সুযোগটি হাতে জমাতে পারেননি ক্রিস ওকস।  

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টস জিতে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ 

মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে শুরুতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন তামিম ইকবাল। ইংল্যান্ড অধিনায়ক জস বাটলার জানিয়েছেন, তিনিও টস জিতলে ব্যাটিং নিতেন।  

বাংলাদেশ আজ তিন স্পিনার ও দুই পেসার নিয়ে একাদশ সাজিয়েছে। বিপরীতে ইংল্যান্ড তিন পেসার নিয়ে একাদশ সাজিয়েছে। তবে তাদেরও তিন স্পিন বোলিং অপশন রয়েছে। সফরকারীদের দলে অভিষেক হয়েছে ব্যাটার উইল জ্যাকসের। 

সর্বশেষ ঘরের মাঠে খেলা ভারত সিরিজ থেকে তিনটি পরিবর্তন এসেছে। তামিম ইকবালের সঙ্গে ফিরেছেন তাইজুল ইসলাম ও নাজমুল হোসেন শান্ত। বাদ পড়েছেন ইয়াসির আলী, এবাদত হোসেন ও এনামুল হক। 

টেস্ট খেলুড়ে সবগুলো দেশের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ জিতলেও ইংল্যান্ডকে কখনো হারাতে পারেনি বাংলাদেশ। ২০১৬ সালে সুযোগ পেয়েও সেটি হাতছাড়া করেছে। সেবার হার দিয়ে শুরু হয়েছিল তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ। মিরপুরে দ্বিতীয় ম্যাচ জিতে সিরিজে সমতা ফেরায় যদিও। তবে চট্টগ্রামে সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচে হেরে জয়ের সুযোগ হাতছাড়া করে মাশরাফির দল। এবার সুযোগ সেই আক্ষেপ ঘোচানোর। 

বাংলাদেশ একাদশ: তামিম ইকবাল (অধিনায়ক), লিটন দাস, নাজমুল হোসেন শান্ত, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ, আফিফ হোসেন, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাসকিন আহমেদ, তাইজুল ইসলাম ও মোস্তাফিজুর রহমান।

ইংল্যান্ড একাদশ: জেসন রয়, ফিল সল্ট, ডেভিড মালান, জেমস ভিন্স, জস বাটলার, উইলি জ্যাকস, মঈন আলী, ক্রিস ওকস, আদিল রশিদ, জোফরা আর্চার ও মার্ক উড। 


সর্বশেষ