• ২০২৩ ফেব্রুয়ারী ০১, বুধবার, ১৪২৯ মাঘ ১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:০১ পূর্বাহ্ন
  • বেটা ভার্সন
Logo
  • ২০২৩ ফেব্রুয়ারী ০১, বুধবার, ১৪২৯ মাঘ ১৯

মিয়ানমারে দেশত্যাগের চেষ্টার অভিযোগে ১১২ রোহিঙ্গার কারাদণ্ড

  • প্রকাশিত ২:১১ অপরাহ্ন মঙ্গলবার, জানুয়ারী ১০, ২০২৩
মিয়ানমারে দেশত্যাগের চেষ্টার অভিযোগে ১১২ রোহিঙ্গার কারাদণ্ড
সংগৃহীত
নিজস্ব প্রতিবেদক

মিয়ানমারে অবৈধভাবে দেশত্যাগের চেষ্টার অভিযোগে শিশুসহ ১১২ রোহিঙ্গাকে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। গত ডিসেম্বরে পুলিশের হাতে আটক হন তারা। ৬ জানুয়ারি তাদের কারাদণ্ড দেন আদালত। রাষ্ট্র নিয়ন্ত্রিত সংবাদমাধ্যম গ্লোবাল নিউ লাইট অব মিয়ানমারের বরাত দিয়ে মঙ্গলবার এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা।

পুলিশের বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেশত্যাগের জন্য বৈধ কোনও সরকারি অনুমতি না থাকায় তাদের দুই থেকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

রায়ে অনূর্ধ্ব ১৩ বছরের শিশুদের দুই বছর, বাকি শিশুদের তিন বছর এবং বড়দের পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেন দক্ষিণ আয়ারওয়াদি অঞ্চলের আদালত।

নাগরিকত্বসহ যাবতীয় মৌলিক অধিকার থেকে বঞ্চিত মিয়ানমারের রোহিঙ্গাদের বিশ্বের সবচেয়ে নিপীড়িত জনগোষ্ঠীগুলোর একটি হিসেবে বিবেচনা করা হয়। ফলে প্রতি বছরই এ জনগোষ্ঠীর হাজার হাজার মানুষ অবৈধ পথে বাংলাদেশ, মালয়েশিয়া ও ইন্দোনেশিয়ার মতো পার্শ্ববর্তী দেশগুলোতে পাড়ি জমায়। বাংলাদেশের শিবিরগুলো থেকেও অনেকে অবৈধভাবে অন্য দেশে যাত্রা করে থাকে।

জাতিসংঘের শরণানার্থী বিষয়ক সংস্থার তথ্যমতে, ২০২১ সালের তুলনায় ২০২২ সালে বিভিন্ন দেশে রোহিঙ্গা শরণার্থীর সংখ্যা বেড়েছে ছয় গুণ। মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ এসব দেশে রোহিঙ্গারা পাড়ি জমায় অপেক্ষাকৃত উন্নত জীবন পাওয়ার আশায়।


সর্বশেষ