• ২০২২ নভেম্বর ২৬, শনিবার, ১৪২৯ অগ্রহায়ণ ১২
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:৫০ অপরাহ্ন
  • বেটা ভার্সন
Logo
  • ২০২২ নভেম্বর ২৬, শনিবার, ১৪২৯ অগ্রহায়ণ ১২

টুইটার: নিয়ন্ত্রণ নিয়েই সিইও পরাগ আগরওয়ালকে বরখাস্ত করলেন মাস্ক

  • প্রকাশিত ২:১৫ অপরাহ্ন শুক্রবার, অক্টোবর ২৮, ২০২২
টুইটার: নিয়ন্ত্রণ নিয়েই সিইও পরাগ আগরওয়ালকে বরখাস্ত করলেন মাস্ক
সংগৃহীত
নিজস্ব প্রতিবেদক

সোশ্যাল মিডিয়া জায়ান্ট টুইটার কেনার প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেছেন ইলেকট্রিক গাড়ি নির্মাতা ও প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান টেসলার প্রধান নির্বাহী ইলন মাস্ক। ক্রয় প্রক্রিয়া সম্পন্নের পর বৃহস্পতিবার (২৭ অক্টোবর) সংস্থাটির নিয়ন্ত্রণও নিয়েছেন তিনি।

আর এরপরই টুইটারের শীর্ষ কর্মকর্তাদের বরখাস্ত করেছেন ইলন মাস্ক। বরখাস্ত হওয়া কর্মকর্তাদের মধ্যে টুইটারের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা পরাগ আগরওয়ালও রয়েছেন বলে বৃহস্পতিবার গভীর রাতে মার্কিন একাধিক সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে।

শুক্রবার (২৮ অক্টোবর) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা এএফপি।

ওয়াশিংটন পোস্ট এবং সিএনবিসি নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক সূত্রের বরাত দিয়ে জানিয়েছে, টুইটারের প্রধান নির্বাহী পরাগ আগরওয়ালকে বরখাস্ত করেছেন ইলন মাস্ক।

একইসঙ্গে কোম্পানির প্রধান আর্থিক কর্মকর্তা এবং টুইটারের আইনি নীতি, বিশ্বাস ও নিরাপত্তার প্রধানকেও বরখাস্ত করেছেন তিনি।

প্রসঙ্গত, টেসলা প্রধানকে টুইটার কেনার চুক্তির শর্তে আটকে রাখার জন্য আদালতে গিয়েছিলেন পরাগ আগরওয়াল।

বৃহস্পতিবার মাস্ক টুইট করে বলেছেন, তিনি টুইটার কিনছেন ‘কারণ সভ্যতার ভবিষ্যতের জন্য একটি সাধারণ ডিজিটাল টাউন স্কোয়ার থাকা গুরুত্বপূর্ণ, যেখানে বিস্তৃত বিশ্বাসের সাথে স্বাস্থ্যকর পন্থায় বিতর্ক করা যেতে পারে।’

অবশ্য টুইটার কেনার চুক্তি সম্পন্ন হলে কর্মী ছাঁটাইয়ের পথে মাস্কের হাঁটার পরিকল্পনা আগেই প্রকাশ পায়। এমনকি ঠিক কী পরিমাণ কর্মী ছাটাই হবে সেটিও প্রকাশ হয়। চলতি অক্টোবর মাসের তৃতীয় সপ্তাহে প্রভাবশালী মার্কিন সংবাদমাধ্যম দ্য ওয়াশিংটন পোস্ট জানায়, মালিকানা নেওয়ার পর টুইটারের প্রায় ৭৫ শতাংশ কর্মীকে ছাঁটাই করার পরিকল্পনা করেছেন ইলন।

ওয়াশিংটন পোস্টের ওই প্রতিবেদনে দাবি করা হয়, টুইটারের মালিকানা যার হাতেই থাকুক না কেন, আগামী কয়েক মাসেই কর্মী ছাঁটাই করা হতে পারে। যদিও সংস্থাটির মানবসম্পদ বিভাগের এক কর্মী সেসময় আশ্বস্ত করেন, এখনই গণহারে কর্মী ছাঁটাই করার কোনো পরিকল্পনা নেই।

কিন্তু ওয়াশিংটন পোস্ট দাবি করেছিল, পরিকাঠামো খাতে খরচ কমাতে কর্মী ছাঁটাইয়ের পরিকল্পনা মাস্কের টুইটার কেনার প্রস্তাব দেওয়ার অনেক আগেই করা হয়েছে।উল্লেখ্য, চলতি বছর এপ্রিলে রেকর্ড ৪৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে টুইটার কিনে নেওয়ার ঘোষণা করেছিলেন ইলন মাস্ক। এরপরে নিজের সিদ্ধান্ত থেকে পিছিয়ে আসেন মাস্ক। সেসময় তিনি জানিয়েছিলেন, অনুমানের থেকে টুইটারে বটের বা ভুয়া অ্যাকাউন্টের সংখ্যা কয়েক গুণ বেশি হওয়ার কারণেই সংস্থাটি কেনার এই সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসা।

তবে অক্টোবরের শুরুতে সোশ্যাল মিডিয়ার জায়ান্ট এই প্রতিষ্ঠান কেনার সিদ্ধান্তে ফিরে আসেন ইলন মাস্ক। এসময় আগে যে দামে টুইটার কিনতে চেয়েছিলেন সেই দামেই আবার কেনার প্রক্রিয়া এগিয়ে নেওয়ার ঘোষণা দেন তিনি।

এরপর বৃহস্পতিবার টুইটার কেনার প্রক্রিয়া সম্পন্ন করলেন তিনি।


সর্বশেষ